ঘরের মধ্যেই হিন্দি গানে দুর্দান্ত নাচ নেচে সোশ্যাল মিডিয়ার ভাইরাল এই বৌদি, ভাইরাল ভিডিও

0

আমাদের জীবনে সোশ্যাল মিডিয়ার গুরুত্ব ক্রমেই বেড়ে চলেছে। মানুষ এটি এমন একটি প্লাটফর্ম হিসেবে ধরে নিয়েছে যার মাধ্যমে সারা বিশ্বের কাছে নিজেকে এবং নিজের প্রতিভাকে তুলে ধরতে সক্ষম হয়। যত দিন যাচ্ছে ততই মানুষ যেন আরো বেশি এই ডিজিটাল দুনিয়ার ওপরে নির্ভর হয়ে পড়ছে।তারা নিজেদের জীবনটাকে যেনো খুঁজৈ নিয়েছে ওই খুঁদে মোবাইলের মধ্যে।

তাই এক কথায় বলা চলে যে ইন্টারনেট এখন মানুষের ভাবনা চিন্তা নিয়ন্ত্রণ করছে। আগে একটা সময় ছিল যখন মানুষজন দেশের প্রতিদিনের খবর পাওয়ার জন্য নির্ভরশীল ছিল টিভির ওপরে। সত্যিই কথা বলতে, আমাদের জীবনে এক এবং অদ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় এখন দখল করেছে সোশ্যাল মিডিয়া। আজ থেকে ২০ বছর আগে অবধি ও একটা সময় ছিল,

যখন মানুষজন প্রতিদিনের খবর পাওয়ার জন্য নির্ভরশীল ছিল টিভির ওপরে। সময় এমন একটা শব্দ, যা প্রতিনিয়ত বদলায়। তবে এখন ইন্টারনেটের দৌলতে সব খবরই এখন আমাদের হাতের মুঠোয়। বাড়িতে বসে মোবাইল ফোনেই দেখতে পাই আমার সেসব। এই জেনারেশনের মধ্যে tiktok নিয়ে উন্মাদনা তুঙ্গে! নিজেদের ট্যালেন্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকেস করতে মরিয়া এখন সবাই,

সারাদিন মেতে রয়েছেন মোবাইলে! কখনও নাচছে আবার কখন গাইছে , কখনও অভিনয়, কখনও বা মারকাটারি অ্যাকশন… প্রতি মুহূর্তে ট্যালেন্টে ট্যালেন্টে একেবারে ছয়লাপ! কিছুদিন আগে দেশজুড়ে টিকটক বর্জন করার দাবি উঠলেও তাতে এই চীনা অ্যাপের জনপ্রিয়তায় একটুও ভাঁটা পড়েনি। প্রতিদিনই একের পর এক ভিডিও ভাইরাল হয়ে চলেছে এই অ্যাপে।

এখন হলো গিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ। স্মার্ট ফোনে ধারন যে কোনো ছবি বা ভিডিও সারা বিশ্বের সাথে ভাগ করে নেন নেট পাড়ার সমস্ত বাসিন্দারা। আর সেই ভাইরাল ছবি বা ভিডিও এর জেরেই কেউ রাতারাতি তারকা বা কেউ খলনায়ক বনে যায় যে। টিকটক ছাড়া এই মুহুর্তে অনেকেই সময় কাটানোর অন্য উপায় ভাবতে পারেন না৷ টিকটকের নেশা যে সত্যিই কতটা ক্ষতিকারক তা আর বোঝার বাকি নেই।

প্রায়ই দেশের চারিদিক থেকে শোনা যায় নানাধরনের খবর। সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন ঘটনার সাথে সাথে নানা রকম মানুষের নানারকম প্রতিভা নাচ-গান আঁকা ইত্যাদি সব রকমের প্রতিভার ই ঝালক আমরা দেখতে পাই। সম্প্রতি তেমনি একটি ভাইরাল হওয়া একটা ভিডিও দেখে চমকে উঠলেন নেটিজেনরা। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটু যুবতী একটি জনপ্রিয় হিন্দি গান,

‘ বাবুজি যারা ধীরে চলো ‘ গানে তুমুল নাচ্ছে। যুবতীদের নাম আতিয়া। এই ভিডিওটি ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ভাইরাল হয়ে যায়। প্রচুর লাইক এবং শেয়ার হয়েছে এই ভিডিওটি। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এই যুবতী টিকটক ভিডিও করার জন্য বৃষ্টির জলে জিমন্যাস্টিকের ভোল্ট খেতে গিয়ে ছাদে স্লিপ খেয়ে ধপাস করে পড়লেন।

গোটা ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রচুর লাইক কমেন্ট পড়েছে ও শেয়ার ও হয়েছে এই ভিডিওটির।এখ’ন পর্যন্ত এই ভিডিও প্রায় কয়েক মি’লিয়ন মানুষ দেখে ফে’লেছে।এই ভিডিওর উপ’র প্র’চুর প’রিমাণে লাইক ক’মেন্ট শেয়ার রয়েছে। সো’শ্যাল মিডিয়ার প্র’ত্যেকটি প্লা’টফর্মে এই ভিডিও প্র’চুর প’রিমাণে শেয়ার হয়েছে।