হাঁসখালীতে সড়ক দুর্ঘ’টনা’য় নিহত ও আহতদের আর্থিক সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিলেন প্রধানমন্ত্রী

0

আমরা এক কথায় বিনোদন বলতে বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াকে বুঝি। বর্তমান এই আধুনিক যুগের শিখরে দাড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের কাছে বিনোদনের এক আলাদাই মানে হয়ে দাড়িয়েছে। শুধু বিনোদন না মানুষজন তার প্রতিভা এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সকলের সামনে তুলে ধরে রাতারাতি স্টার হতে পারে।

এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই আমরা রানু মন্ডল, বিপাশা দাস ও চাঁদমনি হেমব্রমের মতো সঙ্গীত শিল্পীদের আমাদের মাঝে পেয়েছি। এছাড়া রানু মন্ডল এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জনপ্রিয় হবার পর তার বর্তমানে একটি বায়োপিকও তৈরি হচ্ছে।

এছাড়াও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগ যেমন – বন্যা, ভারী বৃষ্টিপাত এই সকল আমরা এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই নিমিষের মধ্যে জেনে যেতে পারি। এক কথায় বলতে গেলে সোশ্যাল মিডিয়ার অবদান আমাদের জীবনে অনস্বীকার্য।

চলুন আজকের আলোচনা শুরু করা যাক। নদিয়ার হাঁসখালিতে দুর্ঘটনায় হতাহতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ওই দুর্ঘটনায় প্রতি নিহতের নিকটাত্মীয়কে দু-লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি আহতদের পঞ্চাশ হাজার টাকা দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে। রবিবার এ কথা জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দফতর। দুর্ঘটনা নিয়ে শোকজ্ঞাপনও করেন প্রধানমন্ত্রী। ওই দুর্ঘটনা নিয়ে আগেই শোক জানিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-ও।

এর কিছু ক্ষণের মধ্যেই ইংরেজি এবং বাংলা দুই ভাষায় টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী টুইট করেন, ‘পশ্চিমবঙ্গের নদিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় বহু মানুষের প্রাণহানিতে অত্যন্ত ব্যথিত। শোকসন্তপ্ত পরিবারগুলির প্রতি আমার সমবেদনা। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করি।

’নিবার রাতের ওই দুর্ঘটনা নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও। বাংলায় করা টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘পশ্চিমবঙ্গের নদিয়া জেলায় ঘ-‘টে যাওয়া পথ দু-‘র্ঘ-‘ট-‘না অত্যন্ত দুঃখ-‘জন-‘ক। এই দু-‘র্ঘট-‘নায় প্রাণ হারানো মানুষদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। ঈশ্বর ওঁদের এই কঠিন পরিস্থিতিতে সহায় হন। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’