সবথেকে কম বয়সে মেয়র হিসেবে নি’র্বাচিত এসএফআই নেত্রী, এইবার ইতিহাসে নাম লেখাতে চলেছে এই তরুণী

0

দক্ষিণ থেকে বামপন্থী কন্যা হিসাবে এইবার উঠে এলো দেশের সবথেকে কম বয়সী মেয়র। এই কেরল কন্যার নাম আ’র্যা রাজেন্দ্রন।

তিনি একজন এসএফআই নেত্রী, এইবার শপথ নেবেন তিনি এবার শপথ নেবেন তি’রুবনন্তপুরম পুরসভার মেয়র পদে।

বয়স মাত্র ২১ বছর, কিন্তু এই অল্প বয়সেই তার এই কৃ’তিত্ব সমগ্র দেশে খুবই বিরল ব্যাপার। ইতিমধ্যেই অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতারা তার এই কৃতিত্বের জন্য তাকে শু’ভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছেন।

21 বছরের এই আর্যা রাজেন্দ্রন কেরল রাজ্য কমিটির সদশ্য যেটি বামপন্থী ছাত্র সংগঠন এসএফ’আইয়ের অ’ন্তর্গত।

পাশাপাশি তিনি সিপিএমের সংগঠনেরও সদস্য। তাকে সিপিএমের প্রার্থী হিসাবে তি’রুবনন্তপুরম পুরসভার লড়াইয়ে দাঁড়াতে দেখা যায়।

ল’ড়াইয়ে তাঁর বি’পক্ষ পার্টিতে ছিল ইউডিএ প্রার্থী শ্রীলেখা। ২৮৭২ ভোটের ব্যবধানে শ্রীলেখাকে হারিয়ে জ’য়ী হয় আর্যা।

বিজয় লাভের পর মে’য়র হিসাবে তার নামের প্রস্তাব পাঠায় সিপিএম রাজ্য কমিটি নিজেই। মাত্র 21 বছর বয়সেই নতুন দা’য়িত্বভার এর কথা জানানো হয় এই কমরেড ত’রুণীকে।

এত স্বল্প বয়সে মেয়র পদ লাভ করে এইবার ইতিহাস গড়তে চলেছে এই তরুণী। তার প্র’তিক্রিয়া জানতে গেলে জানা যায় খুব সাদাসিধে।

একটি কথা, “দল আমাকে যে দা’য়িত্বটা দেবে সেটা খুব ভালোভাবে মন দিয়ে পালন করাই হবে আমার ক’র্তব্য। এ ছাড়াও স্থানীয় মহিলাদের ওপর আমার নজরদারি সব সময় থাকবে তাদের সমস্যার স’মাধানের জন্য।”

কেরলে বামপন্থীরা নতুন উ’দ্যোগ নিয়েছেন পরবর্তী প্রজন্মকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য। নি’র্বাচনে তরুণ মুখে দাঁড় করাচ্ছেন শাসক দল।

আর্যার কথা বিষয়ে বলতে গেলে, সে এখনো কলেজ ছাত্রী। অংকে অনার্স নিয়ে পড়াশোনা করছে সে’ন্টস কলেজে।

তার পাশাপাশি জোরকদমে চলছে বামপন্থী রাজনীতি। তার এই কঠিন ল’ড়াইয়ের ফ’লস্বরূপ আজ সে স্থানীয় পৌর সভার মেয়র পদ লাভ করতে চলেছে।

যদিও এই প্রাপ্য সম্মান উ’চ্ছ্বসিত এবং খুশি প্রকাশ এর থেকেও আরো বেশি জোর দিয়েছে নিজের দায়িত্ব পালন করার ওপর।