ঘরের মধ্যে শাড়ি পরে জনপ্রিয় হিন্দি গানে তুমুল নাচলেন সকলের প্রিয় পটল কুমার, নেটদুনিয়ায় ভিডিও ভাইরাল

0

আমরা এক কথায় বিনোদন বলতে বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াকে বুঝি। বর্তমান এই আধুনিক যুগের শিখরে দাড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের কাছে বিনোদনের এক আলাদাই মানে হয়ে দাড়িয়েছে। শুধু বিনোদন না মানুষজন তার প্রতিভা এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সকলের সামনে তুলে ধরে রাতারাতি স্টার হতে পারে।

এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই আমরা রানু মন্ডল, বিপাশা দাস ও চাঁদমনি হেমব্রমের মতো সঙ্গীত শিল্পীদের আমাদের মাঝে পেয়েছি। এছাড়া রানু মন্ডল এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জনপ্রিয় হবার পর তার বর্তমানে একটি বায়োপিকও তৈরি হচ্ছে।

এছাড়াও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগ যেমন – বন্যা, ভারী বৃষ্টিপাত এই সকল আমরা এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই নিমিষের মধ্যে জেনে যেতে পারি। এক কথায় সোশ্যাল মিডিয়ার অবদান আমাদের জীবনে অনস্বীকার্য।

খুদে অভিনেত্রী হিয়া দে কে আপনারা সকলেই চেনেন এবং জানেন। তিনি আমাদের কাছে জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘পটলকুমার গানওয়ালা’ র মূল চরিত্র পটল হিসেবে খ্যাত। দেখতে দেখতে তেরো বছর বয়সে পা দিয়েছেন হিয়া। কিন্তু এই বয়সেই তিনি এমন একটি ইন্সটাগ্রাম রিল শেয়ার করেছেন যেটি কিন্তু তাঁর বয়সের পরিপ্রেক্ষিতে খুব একটা গ্রহণযোগ্য নয়।

এর আগে এই একই কারণে নেট দুনিয়ায় ট্রোল হতে হয়েছিল হিয়াকে। কিন্তু তবু তিনি আবারও সম্প্রতি এই ধরনের একটি ইন্সটাগ্রাম রিল শেয়ার করলেন। রিলে হিয়াকে দেখা যাচ্ছে গোলাপি রঙের শাড়ি ও প্রিন্টেড স্লিভলেস ব্লাউজ পরে। হালকা মেকআপ রয়েছে হিয়ার মুখে।

শাড়িটি তিনি নাভির নিচে পরেছেন। তিনি এই রিলে করিনা কাপুরের সিনেমার জনপ্রিয় গান ‘ফেভিকল সে’-র বিশেষ কয়েকটি লাইন ব্যবহার করেছেন। এই লাইনগুলি ছিল এই গানের সবচেয়ে বিতর্কিত লাইন। “ম্যায় তো তন্দুরী মুরগি হুঁ ইয়ার” লাইনটি ব্যবহার করেছেন হিয়া। এই গানের জন্য করিনাকেও ট্রোল হতে হয়েছিল।

হিয়ার শেয়ার করা ইন্সটাগ্রাম রিলে অশ্লীল ধরনে তাঁর নাচ চোখ এড়ায়নি নেটিজেনদের। নেটিজেনরা হিয়ার এই ভিডিওটির পরিপ্রেক্ষিতে ভিন্ন ভিন্ন মত প্রকাশ করেছেন। নেটিজেনদের একাংশ বলেছেন, হিয়ার এখন পড়াশোনা করার বয়স। একাংশ হিয়ার নাভি দেখানোর ধরন নিয়ে অশ্লীল কটাক্ষ করেছেন।

তবে হিয়া এই ট্রোলের বিরুদ্ধে কোনো প্রতিক্রিয়া জানাননি। কিন্তু সকলেই আশঙ্কা করছেন হিয়ার এই ধরনের ইন্সটাগ্রাম রিল বানানোর কারণে তাঁর আপকামিং সিনেমা ‘নির্ভয়া’-র উপর এর নেতিবাচক তথা খারাপ প্রভাব পড়তে পারে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Hiya Dey (@hiia_dey_official)

কারণ এই সিনেমাটির বিষয় হল তেরো বছর বয়সী একটি মেয়ে গ‍্যাংরেপড হওয়ার পর তার অযাচিত প্রেগন‍্যান্সি। ‘নির্ভয়া’ মুক্তি পেতে চলেছে নভেম্বর মাসে। তার মধ্যেই হিয়ার এই ধরনের নাচ প্রশ্ন তুলে দিয়েছে, তিনি তাঁর অ্যাক্টিং কেরিয়ারকে গুরুত্ব সহকারে নিচ্ছেন কিনা!

অংশুমান প্রত্যুষ পরিচালিত ‘নির্ভয়া’ সমাজের নির্যাতিতা মেয়েদের প্রতি একটি ট্রিবিউট। তিনি নিজেও কিন্তু এই ফিল্মে কোনো রেপ দৃশ্য রাখেননি। এমনকি হিয়াকে অন্তঃসত্ত্বা দেখানোর ক্ষেত্রেও তাঁর মনে দ্বিধা ছিল। কিন্তু চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে তা করতে হয়েছে।