প্রথম দেখাতেই পছন্দ শ্রীমাকে, ভাগ্যচক্রে কি শোলাঙ্কির সঙ্গে “গাঁটছড়া” বাঁধবেন অভিনেতা গৌরব

0

আমরা এক কথায় বিনোদন বলতে বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াকে বুঝি। বর্তমান এই আধুনিক যুগের শিখরে দাড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের কাছে বিনোদনের এক আলাদাই মানে হয়ে দাড়িয়েছে। শুধু বিনোদন না মানুষজন তার প্রতিভা এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সকলের সামনে তুলে ধরে রাতারাতি স্টার হতে পারে।

এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই আমরা রানু মন্ডল, বিপাশা দাস ও চাঁদমনি হেমব্রমের মতো সঙ্গীত শিল্পীদের আমাদের মাঝে পেয়েছি। এছাড়া রানু মন্ডল এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জনপ্রিয় হবার পর তার বর্তমানে একটি বায়োপিকও তৈরি হচ্ছে।

এছাড়াও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগ যেমন – বন্যা, ভারী বৃষ্টিপাত এই সকল আমরা এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই নিমিষের মধ্যে জেনে যেতে পারি। এক কথায় বলতে গেলে সোশ্যাল মিডিয়ার অবদান আমাদের জীবনে অনস্বীকার্য।

স্টার জলসায় একের পর এক নতুন ধারাবাহিক শুরু হচ্ছে। কম টিআরপি থাকলেই তা অন্য স্লটে দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তার স্থান নিচ্ছে নতুন ধারাবাহিক। এবার স্টার জলসা বাঁধতে চলেছে ‘গাঁটছড়া’। প্রকৃতপক্ষে, এটি একটি নতুন সিরিয়াল।

স্টার জলসায় শুরু হতে চলেছে ‘গাঁটছড়া’। রীতিমত স্টারকাস্ট নিয়ে শুরু হতে চলেছে এই সিরিয়াল। ‘করুণাময়ী রানী রাসমণি’-র পর আবারও ‘গাঁটছড়া’-র মাধ্যমে ছোট পর্দায় ফিরছেন গৌরব চট্টোপাধ্যায়, রয়েছেন অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়।

ইদানিং তাঁকে ফিল্মে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছিল। তবে তাঁর যাত্রাও শুরু হয়েছিল ছোট পর্দার মাধ্যমেই। সেখানেই আবারও ফিরছেন অনিন্দ্য। রয়েছেন শোলাঙ্কি ও শ্রীমা। স্নিগ্ধা বসু ও সানি ঘোষের প্রযোজনায় ‘অ্যাক্রোপলিস’-এর ব্যানারে তৈরি ‘গাঁটছড়া’-র প্রোমো সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে।

প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে, সিংহ রায় বাড়ির জগদ্ধাত্রী পুজোর সাজসজ্জার দায়িত্বে থাকা ভট্টাচার্য বাড়ির মেজো মেয়ে তার দিদির মতো স্টাইলিশ নয়। সে ফটাফট ইংরাজি বলতে জানে না। মেকআপের আধিক্য নেই তার মধ্যে। অথচ তার দিদি সারাদিন মেকআপ করে, ইংরাজি বলে ও সেলফি তুলে নিজের বর খুঁজতেই ব্যস্ত।

এই কারণে সে তার মায়ের বিশেষ স্নেহের পাত্রী। তার মা চান বড়লোক জামাই। ছোট মেয়ে আবার মেজদিকেই বেশি পছন্দ করে। সে টমবয়। তারা হাজির হয় সিংহ রায় বাড়ির জগদ্ধাত্রী পুজোয়। সেখানেই বাড়ির বড় ছেলে ঋদ্ধিমান পছন্দ করে ভট্টাচার্য বাড়ির বড় মেয়েকে।

সে বলে, তার হীরে চিনতে ভুল হয় না। দাদার প্রতি ঈর্ষান্বিত মেজো ভাই রাহুল এগিয়ে এসে মেয়েটির সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতায়। পুজোর দালানে ঋদ্ধিমানের সঙ্গে ধাক্কা লাগে ভট্টাচার্য বাড়ির মেজো মেয়ের। তার হাত থেকে জগদ্ধাত্রীর পট পড়ে ভেঙে যায়।

সে রেগে ওঠে ঋদ্ধিমানের উপর। মেজো মেয়ের নাম খড়ি। কিন্তু এইসব ঘটনা যখন ঘটছে তখন বাড়ির সিংহ রায় বাড়ির ছোট ছেলে কুণাল ও ভট্টাচার্য পরিবারের ছোট মেয়ে নিস্পৃহ। অতএব কার সঙ্গে কার ‘গাঁটছড়া’ ভাগ্যে লেখা আছে, তা এখনই ফাঁস হচ্ছে না।

তবে এটি নিশ্চিত যে, কোনো একটি সিরিয়াল শেষ হতে চলেছে। অথবা হবে তার স্লট পরিবর্তন। শোনা যাচ্ছে, সন্ধ্যা সাতটার স্লটে আসতে পারে ‘গাঁটছড়া’। হয়তো পাল্টে যাবে ‘শ্রীময়ী’-র স্লট। কারণ ‘শ্রীময়ী’ এখনই শেষ হচ্ছে না।

আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই শেষ হয়ে যাচ্ছে ‘শ্রীকৃষ্ণভক্ত মীরা’। সম্ভবত সেই স্লট পেতে চলেছে ‘শ্রীময়ী’। সূত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে, ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিকটি শুরু হবে।